পাতা দিয়েই করুন জবা গাছ, ফুল হবে সবসময়

জবা আমাদের দেশের খুবই পরিচিত একটি গাছ। প্রায় প্রত্যেকের বাড়িতে এই ফুলের গাছ দেখতে পাওয়া যায়। লাল, সাদা, হলুদ, গোলাপী, কমলা বিভিন্ন রঙের জবা ফুল দেখতে পাওয়া যায়।

যে কোনো নার্সারি থেকে চারা কিনে অথবা অন্য কোনো বড় গাছ থেকে ডাল কেটে এই গাছ লাগানো হয়। তবে আজকের এই প্রতিবেদনে রইল শুধুমাত্র জবা পাতা থেকে কীভাবে নতুন জবা গাছের চারা তৈরি করা সম্ভব।

এর জন্য প্রথমেই জবা গাছ থেকে সতেজ বড় দেখে কয়েকটি পাতা কেটে নিতে হবে। এরপর পাতার যে লম্বা বোঁটা আছে তা খানিকটা কেটে বাদ দিতে হবে এবং একটি বড় পাতাকে অর্ধেক কেটে উপর দিকটা বাদ দিতে হবে। এরপর একটি পরিণত ভালো মানের ড্রাগন ফ্রুট নিয়ে নিতে হবে। এরপর ওই ড্রাগন ফলটি মাঝখান বরাবর অর্ধেক করে কেটে নিতে হবে।

এরপর আগে থেকে অর্ধেক করে কেটে রাখা জবা পাতাগুলির বোঁটার দিকটা ওই ড্রাগন ফলের শাঁসের ভেতর পুঁতে দিতে হবে।এরপর একটি টবে মাটি ভর্তি করে গাছ লাগানোর জন্য টবটি প্রস্তুত করে নিতে হবে। এবার ড্রাগন ফলের মধ্যে গাঁথা জবাব পাতাগুলি এমনভাবে রাখতে হবে যাতে পাতার অংশটা শুধুমাত্র টবের বাইরে অর্থাৎ মাটির বাইরে বেরিয়ে থাকে।

এবার ওই টবটা ছায়াযুক্ত স্থানে রেখে দিতে হবে এবং টানা ৪৫ দিন নিয়মিত জল দিতে হবে। ৪৫ দিন পর মাটি থেকে জবাব পাতাগুলি আস্তে আস্তে টেনে তুললে দেখা যাবে প্রত্যেকটা পাতার তলায় নতুন শিকড় এসেছে এবং নতুন ডালের জন্য ছোট ছোট পাতা বেরিয়েছে।

ইতিমধ্যেই ড্রাগন ফল মাটির সঙ্গে মিশে গিয়েছে।এরপর ওই পাতা বড় টবে বা মাটিতে ভালো জায়গা থাকলে বসিয়ে দিলেই সেখান থেকে নতুন জবা গাছের চারা তৈরি হয়ে যাবে।

ডিসক্লেইমার : এখানে যে পদ্ধতি বর্ণনা করা হয়েছে তাই যে একমাত্র সঠিক সেই বিষয়ে আমাদের প্রতিবেদন দাবি রাখে না। ব্যক্তিবিশেষে অন্য পদ্ধতিতে এর ফল আলাদা হতেই পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.