ডায়া-বেটিস সমস্যা কমায় নিম-পাতা, যে-ভাবে খাবেন !

সুস্থ জীবন-ধারা বজা’য় রাখতে নিম-পাতা অনেক উপ’কারী। ত্বক, চুল-সহ শরী-রের অনেক রোগ প্রতি-রোধ করতেও এই পা’তার জুড়ি মেলা ভার। নিমের গুণা-গুণ অ-জা’না নয় কারোর। এমন প্রাকৃতিক ম’হৌষধি খুব কমই আছে।
গরমে অনে-কেরই নিম-পাতা ভাজা খান। মাঝে-মধ্যে বদহজম, কৃমি বা এই ধরনের সম-স্যায় যারা ভুগে থাকেন, তাদের জন্য নিম-পাতা অন্য-তম। হজমশক্তি উন্নত করতে, ক্লান্তি দূর করতে, কাশি ও ঠান্ডা লাগা দূর করতে, প্রদাহ কমাতেও সাহায্য করে নিমপাতা।

শরী-রের যত্ন নেও’য়ার পাশা-পাশি ত্বক ও চুলের পরি-চ’র্যায়ও সক্রিয় ভূমিকা পালন করে নিম-পাতা। অনেকেই ঘরোয়া উপায়ে নিমের ফেস-প্যাক তৈরি করে মুখে লাগান। স্নানের শেষে নিম-পাতা ফোটানো পানিও ব্যবহার করেন। এতে খুশকি, ব্রণর সমস্যা কমে।-

নিম-পাতা শু-কিয়ে পানি ও মধু মি’শিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করে নিতে পারেন। ত্বকের কোনো ক্ষতস্থানে এটির প্রলেপ দিলে তৎ-ক্ষণাৎ নিরা-ময় হবে। খুশ-কির সমস্যা থাকলে শ্যাম্পু করার পর নিমপাতার পান দিয়ে চুল ধুয়ে নিতে পারেন। চুল খুশকি মুক্ত হবে দ্রুত।-

তেতো যাদের খুব অপ-ছন্দে’র স্বাদ নয়, নিম’পাতা দি’য়ে তৈরি করে নিতে পারেন ভেষজ চা। ডায়া-বেটিস থাকলে এই চা দারুণ কাজ দেয়। অনে’কেই হয়তো জানেন না, শরীরের জমে থাকা দূষিত পদার্থ বাইরে বার করে দি’তেও পার-দর্শী। -শরীর ও ‘ত্বক ভালো রাখতে ওষুধ বা প্রসাধনী নয়, সঠিক-ভাবে ব্যব’হার করতে পারলে নিম-পাতাই হয়ে উঠবে অনেক সম-স্যার সমা-ধান।-

Leave a Reply

Your email address will not be published.