গুগলের চাকরি ছেড়ে দিয়ে সিঙ্গারা বেচে কোটিপতি

চাকরি করতেন গুগলের মতো বিশ্বসেরা প্রযুক্তি কোম্পানিতে। কিন্তু চাকরির সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারছিলেন না তিনি। তাই সেই চাকরি ছেড়ে নেমে পড়লেন খাবারের ব্যবসায়।এমনই একজন ভারতের মুম্বাইয়ের বাসিন্দা মুনাফ কাপাডিয়া। যাকে নিয়ে সম্প্রতি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ফোর্বসের মতো আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

 

 

 

মুনাফ কাপাডিয়া একসময় গুগল-এ অ্যাকাউন্ট স্ট্র্যাটেজিস্ট পদে কর্মরত ছিলেন। কিন্তু গুগল-এর মতো সংস্থায় চাকরি পেয়েও মন বসাতে পারছিলেন না তিনি।সবসময়ই ইচ্ছে ছিল নিজের কিছু করার, যাতে কারো অধীনে থেকে কাজ না করতে হয়। তাই শেষমেশ মায়ের রান্নার পরামর্শকে পুঁজি করে নিজের স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে ফিরে এলেন দেশে।

 

 

 

 

তবে তাঁর স্বপ্ন পূরণের রাস্তা সহজ ছিল না। চাকরি ছেড়ে মুনাফ তার মায়ের হাতের সুস্বাদু রান্না দিয়েই জীবনের প্রথম ব্যবসা শুরু করেন। প্রথমে ডেলিভারি কিচেন ‘দ্য বোহরি কিচেন’ দিয়েই ব্যবসা জগতে আসলেন।কিন্তু ব্যবসা বাড়ানোর জন্য যে পরিমাণ অর্ডার প্রয়োজন ছিল তা তিনি পাচ্ছিলেন না। ফলে একটা সময় ব্যবসা বন্ধ করার কথা ভাবতে শুরু করেন মুনাফ। ঠিক সেই সময় ফোর্বস ইন্ডিয়া থেকে ফোন কল আসে তার কাছে।

 

 

 

তারা মুনাফের ব্যবসা নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করার কথা জানান। জানা যায় প্রখ্যাত এই মার্কিন প্রকাশনা সংস্থা দুনিয়ার সেরা ৩০টি স্টার্ট আপ হিসাবে মুনাফের ‘দ্য বোহরি কিচেন’-কে বেছেছে।শুধু সিঙ্গারার স্বাদ নয়, এ যুগের চাহিদা অনুযায়ী নতুন ধরনের খাবারের খোঁজ দেওয়ার জন্য মিলেছে এই স্বীকৃতি। এরপর পরীক্ষামূলকভাবে কয়েকজন পরিচিতকে সিঙ্গারা খাওয়ান মুনাফ। তারপরের ঘটনা ইতিহাস।

 

 

 

মাত্র ২ বছরে মুনাফের ‘দ্য বোহরি কিচেন’ মুম্বইয়ের অন্যতম আলোচিত খাবারের ঠিকানা। বছরে সিঙ্গারা বেচে মুনাফের মুনাফা প্রায় ৫০ লাখ টাকা। গুগলের চাকরি ছেড়ে সিঙ্গারা ভেজেই এখন কোটি টাকার মালিক এই যুবক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.