আপনি কতটুকু রোমান্টিক? জানা উচিত

ভুল তো মানুষ মাত্রেই হতে পারে৷ নতুন বছরেও এর ব্যতিক্রম হবে কী করে। তবে আজকের দিনে সবাই এত বেশি ইগোইস্টিক, যে স্যরি বলতে গেল মনে হয় ইজ্জতটাই যেন খুইয়ে ফেলবেন। ঢের হয়েছে, এবার ছাড়ুন ওসব। কী করে রোমান্টিকভাবে স্যরি বলবেন জেনে নিন তার নতুন খুঁটিনাটি। আর আপনাকেও ইগোর ভয়ে পড়তে হবে না অস্বস্তিতে।

১)আপনার সঙ্গীর পছন্দের ফ্লেভারের কেকের উপর চকোলেট সস দিয়ে স্যরি লিখে ওর সামনে হাজির করুন। তবে ঝগড়ার পরের দিন। ভালো লাগবে।
২) রাতে ঝগড়া হলে পরদিন সকালে আয়নায় লিপস্টিক দিয়ে বড় করে স্যরি লিখতে পারেন। তবে খুব বেশি চেপে লিখে কাচটাই খারাপ করে দেবেন না।

৩) চাইলে বেড টী টা আপনিই করুন। সঙ্গে দু লাইনের ছড়া লিখে দিন, মানে স্যরি সূচক। আর ছড়া না লিখতে পারলে হাসির নোট দিয়ে দিন প্লেটের উপর, ঠিক কাপের নীচে।
এত কিছু না পোষালে বেডসাইড টুলের পাশে লাল টুকটুকে একটা গোলাপ রেখে দিন। সকালে ঘুম থেকে উঠে আপনার সঙ্গীরও ভালো লাগবে, আর মুখ ফুটে কিছু বলার হাত থেকে আপনিও বাঁচলেন।

৪) টেক্সট মেসেজেও আপনার মনের ভাবটা স্পষ্ট করে বোঝান তাকে, তবে মেসেজ যেন খুব একটা লম্বা না হয়।
আর ব্যাপারটা যদি বার বার হতে থাকে, বা সমস্যা খুবই গুরুতর হয়, তবে একটা সারপ্রাইজ আউটিং প্ল্যান করুন বা কোনও হাল্কা গয়না কিনে উপহার দিন। দুনিয়ায় এমন কেউ নেই যার এগুলো ভালো লাগে না। আর তিনি-ও বুঝতে পারবেন আপনি কত কেয়ারিং।

৬) একটু অভিনবত্বের ছোঁওয়া চাইলে ফ্রিজ, দরজা, ওয়ার্ডরোবে একটা করে স্টিকি নোট রেখে দিন। মানে বাড়ি ফিরে যেই যেই জায়গায় সে যাবে। কেন আপনি আপনার সঙ্গীকে ভালোবাসেন তা ছোট ছোট করে লিখুন। তারপর বিছানায় বালিশের নীচে একটুকরো স্যরি লেখা কাগজ। বরফ গলতে বাধ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.