দুর্ঘটনা এড়াতে বাথটবে গোসলের সময় মাথায় রাখুন এই ৬টি বিষয়

গোসল করতে গিয়ে বাথটবের জলে ডুবে মৃত্যু হয়েছে শ্রীদেবীর। এখন এই মৃত্যুর আকস্মিতয়া তোলপাড়। প্রিয় অভিনেত্রীর এইভাবে চলে যাওয়া কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না ভক্তরা।

উপমহাদেশে এই ধরনের মৃত্যুর উদাহরণ না পাওয়া গেলেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বা জাপানের মতো দেশে এই ধরনের দুর্ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা নেহাত কম নয়। যে কোনও সময়ই ঘটে যেতে পারে দুর্ঘটনা। জেনে নিন বাথটবে স্নান করার সময় কী ভাবে সতর্ক থাকবেন।

১. বাথটবের জল যেন উষ্ণ হয়। অতিরিক্ত গরম নয়। অতিরিক্ত গরম জলে শরীর হঠাত্ ডুবিয়ে দিলে ছ্যাঁকা লেগে হুড়মুড়িয়ে কোনও দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে।

২. বাথটবে পা পিছলে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই বাথটবের মেঝতে রবার ম্যাট বা ননস্কিড ম্যাট পেতে রাখুন।

৩. বাথটব কখনই দুই তৃতীয়াংশের বেশি জলে ভর্তি করবেন না। কারণ জলে নামলে এমনিতেই জলের মাত্রা বেড়ে যাবে। তাতে পিছলে পড়ার ঝুঁকি থাকবে।

৪. জল বিদ্যুতের সংস্পর্শে এলে ঘটে যেতে পারে বড়সড় দুর্ঘটনা। তাই স্নানের পরই সারা শরীর ভাল ভাবে তোয়ালে দিয়ে শুকনো করে মুছে নিন। ভেজা শরীরে গিজার বা অন্য কিছুর সুইচে হাত দেবেন না। গিজারের সুইচ বন্ধ করে তবেই জলে নামুন।

৫. বাথটবের ধারে কাছে হেয়ার ড্রায়ার, স্ট্রেটনার বা ইলেকট্রনিক রেজারের মতো কোনও অ্যাপ্লায়েন্স রাখবেন না। যে কোনও সময় ঘটে যেতে পারে দুর্ঘটনা।

৬. শিশু বা বাচ্চাদের কখনই বাথটবে একা ছেড়ে দেবেন না। ওদের জলে বসিয়ে দিয়ে অন্য কাজে মন দেবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.