দ্রুত দাঁতের যন্ত্রণা কমাতে কিছু সহজ কাজ

দাঁত আমাদের শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। খাবার খাওয়ার জন্য এবং কথা বলতে দাঁতের সাহায্য লাগে। তেমনি সৌন্দর্য্যও বৃদ্ধি করতে দাতের বিকল্প নেই। আমাদের নানা খারাপ অভাস্যের জন্য দাঁত ক্ষতিগ্রস্ত হয়। দাঁতে ব্যথা খুবি যন্ত্রণাদায়ক, তাই দাঁতের স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে কিছু টিপস মেনে চলুন।

১। লবণ গরম পানি দিয়ে কুলকুচি

লবণ মিশ্রিত গরম পানি মাড়ি, দাঁত, গলায় ব্যথা কমাতে খুবি ভাল কাজ করে । এক গ্লাস গরম পানিতে এক চামচ লবণ মিশিয়ে কুলকুচি করুন। এতে দাঁতের যন্ত্রণায় এবং যেকোনও সংক্রমণ সেরে যাবে।

২। দাঁতের গোড়ায় ময়লা জমতে না দেয়া

সঠিক ভাবে দাঁত না মাজলে এবং খাওয়ার পর ভালো করে মুখ পরিষ্কার না করলে, দাঁতের মধ্যে খাবার আটকে থাকতে পারে। ফলে এই খাবার পচে গিয়ে  মাড়ি ও দাঁতের মধ্যে ক্ষতের  তৈরি করে। যার ফলে দাঁতের অসহ্য যন্ত্রণায় হয়।

৩। আদার ব্যবহার

আদা কেটে নিয়ে যে দাঁতে ব্যথা করছে সে দাঁত দিয়ে চিবাতে হবে। যদি চিবাতে ব্যথা লাগে তাহলে অন্য পাশের দাঁত দিয়ে চিবাতে হবে। যে রস তৈরি ও আদার পেস্ট হবে সেটা ওই আক্রান্ত দাঁতের কাছে নিয়ে যাবেন। জিভ দিয়ে একটু চেপে রাখতে হবে দাঁতের কাছে। কিছুক্ষণের মাঝেই ব্যথা কমে যাবে।

৪। বেকিং সোডার ব্যবহার

এক চামচ বেকিং সোডা এক গ্লাস গরম পানিতে গুলে সেটা দিয়ে কুলকুচি করুন। এভাবে কিছুক্ষণ করার পরে ব্যথা কমে যাবে।

৫। রসুন ও পেঁয়াজের ব্যবহার

এক কোয়া রসুন থেঁতলে লবণের সঙ্গে মিশিয়ে অল্প কিছুক্ষণ দাঁতে লাগিয়ে রাখুন। যন্ত্রণা খুব বেশী হলে এক কোয়া রসুন চিবিয়ে খান। দাঁতে ব্যথা হলে এক টুকরো কাঁচা পিঁয়াজ চিবিয়ে খেয়ে নিন। যদি বেশি ঝাঁঝ লাগে তবে দাঁতের ওপর পিঁয়াজ রাখলেও আরাম পাবেন। যন্ত্রণা খুব দ্রুত কমে যাবে।

৬। লবঙ্গ ও দূর্বা ঘাসের রস

দুটো লবঙ্গ থেঁতলে নিয়ে কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েলের সঙ্গে মিশিয়ে পেস্টটা দাঁতে লাগান। কিছুক্ষণ পরে ব্যথা কমে যাবে। অন্যদিকে দূর্ব ঘাসের রসও দাঁতের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

ঘরোয়া এই প্রতিকারগুলো কিছুটা সময়ের জন্য ব্যথা থেকে মুক্তি দিতে পারে মাত্র। কিন্তু যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ডেন্টিস্টের সঙ্গে দেখা করুন এবং চিকিৎসা নিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.