একটি পাখির বাসা বাঁ’চাতেই টানা ৩৫ দিন অন্ধকারে গ্রাম

বিদ্যুতের স্যুইচবোর্ডে বাসা বেঁ’ধেছে পাখি। আর এই স্যুইচবোর্ডের উপরই নির্ভর করে গ্রামের স্ট্রিট লাইটের আলো জ্ব’লা ও নেভা। এরপর ডিম ও পাখীর বাচ্চাদের বাঁ’চাতে ৩৫ দিন অ’ন্ধকারেই থাকল পুরো গ্রাম। এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের তামিলনাড়ুর শিবগঙ্গায়। খবর সংবাদ প্রতিদিন।

জানা যায়, তামিলনাড়ুর শিবগঙ্গা জেলার একটি গ্রামের বিদ্যুতের মেইন স্যুইচবোর্ডের উপর বাসা বানায় পাখি। এরপর গ্রামবাসীরা প্রায় সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নেয়, পাখির ডিম থেকে বাচ্চা ফুটে বের না হওয়া পর্যন্ত ওই গ্রামে আলো জ্বালানো হবে না। করলেনও তাই।

পাখির বাচ্চাদের বাঁ’চাতে এই ভরা বর্ষার মধ্যেও অ’ন্ধকারে চলাফেরা করলেন গোটা গ্রামের লোকজন। মোবাইলের টর্চ, টর্চ লাইট ব্যবহার করেই গ্রামবাসীরা এই ক’দিন রাস্তায় যাতায়াত করেছেন শুধুমাত্র পাখির বাঁ’চানোর জন্য।

আরও পড়ুন…।

বাংলাদেশে বর্ষা মৌসুমে প্রতি বছর অন্তত পাঁচ লাখ আশি হাজার মানুষ সাপের দং’শনের শি’কার হন, এবং অন্তত ছয় হাজার মানুষ মা’রা যান। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ২০১৯ সালের অক্টোবরে প্রকাশিত সর্বশেষ রিপো’র্টে এ ত’থ্য দেখা গেছে। দেখা গেছে, প্রতি বন্যার সময় অর্থাৎ মে, জুন এবং জুলাই- এই তিন মাস সাপের দং’শন এবং তার কারণে মৃ’ত্যুর সংখ্যা বাড়ে।

বন্যপ্রাণী বিশেষ করে সা’প এবং সাপের দং’শনজনিত মৃ’ত্যু এবং শারীরিক ও মানসিক আ’ঘা’ত নিয়ে কাজ করেন এমন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, রাজশাহী এবং ময়মনসিংহ এলাকায় সাপের কা’মড় এবং তা থেকে মৃ’ত্যুর ঘ’টনা বেশি ঘ’টে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যাপক অনিরুদ্ধ ঘোষ যিনি সাপের দং’শন এবং অ্যা’ন্টিভে’নম নিয়ে গবেষণা করেন, তিনি বলছিলেন, সাপ কা’টলে কী করতে হবে, তার সঙ্গে কী করবেন না-দুইটাই জেনে রাখতে হবে।

সাপে কা’টলে কী করবেন : দ্রুত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন, হাত বা পা ভা’ঙলে যেমন করে শক্ত কিছু দিয়ে কাপড় দিয়ে হালকা করে বাধা হয়, সেভাবে বাঁধুন। সাপে কা’টা পেশী যতটা কম সম্ভব ন’ড়াচ’ড়া করুন, পেশীর ন’ড়াচ’ড়া যত কম হবে, বি’ষ তত কম ছড়াবে।

সাপে কা’টলে কী করবেন না : আ’ত’ঙ্কিত হওয়া যাবে না। ওঝা বা ঝা’ড়ফুঁ’কের অপেক্ষা করে কালক্ষে’পণ করবেন না। চিকিৎসক দেখার আগ পর্যন্ত কিছু খাওয়া উচিত না। কোনো মলম বা মালিশ লাগানো উচিত না। সাপে কা’টা জায়গায় শ’ক্ত করে বাঁ’ধা যাবে না। কারণ তাতে র’ক্ত জমে গিয়ে আ’ক্রা’ন্ত ব্যক্তি প’ঙ্গু হয়ে যেতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.