অন্যের চোখে হয়ে উঠুন সম্মানের পাত্র। জেনে নিন উপায়।

অনেকেই আছেন যারা নিজেদের অজান্তেই অন্যের কাছে নিজের অবস্থানকে অনেকটা নামিয়ে আনেন। হাস্যকর আর অবাঞ্ছিত করে ফেলেন। ফলে একটা সময় গিয়ে অবহেলা আর তাচ্ছিল্যের শিকার হয়ে অবসাদ আর বিষন্নতায় ভুগতে হয় তাদেরকে। আর তাই অন্যদের চোখে নিজেকে আরো অনেক বেশি সম্মানের করে তুলতে, নিজের অবস্থানকে আরো বেশি ভারী করে তুলতে, অন্যদের কাছে যথাযথ মনযোগ পেতে হলে যে ছোট্ট কয়টি কাজ করা উচিত তাই এখানে দেওয়া হল।

১. পড়ুন
পড়াশোনার বিকল্প কিছু নেই। তবে কেবল বই এর পড়াই নয়। পড়ুন বাইরের সবকিছু যেমন- গল্পের বই, সাধারণ জ্ঞানের বই, পত্রিকা ইত্যাদি। নিজেকে আপটু ডেট রাখুন। খেয়াল রাখুন অন্যদের আলোচনায় আপনার কথাটি যেন অত্যন্ত যুক্তিযুক্ত আর মানানসই হয়।

২. কম কথা
অতিরিক্ত বলার অভ্যাস বাদ দিন। যে অযথাই কথা বলে তাকে অন্যেরাও খুব একটা পাত্তা দিতে চায়না। তাই সময়-সুযোগ বুঝে কথা বলুন। আর সব কথা সব স্থানে বলতে নেই সেটাও মনে রাখুন। ঠিক কোন কথাটি, কতটুকু, কোথায় বলা যেতে পারে সেটা ভেবে নিন। কোন কথা বলার আগে নিজেকে একবার শুনিয়ে নিন মনে মনে। ভাবুন এরপর কী হবে। কথাটা কাকে ঠিক কতটা প্রভাবিত করবে। সবসময়ই মনে রাখবেন, অল্পভাষী মানুষেরা যা বলেন তাই শোনার জন্যে সবাই আগ্রহ দেখান।

৩. নিজেকে বিশ্বাস করুন
নিজের ওপর বিশ্বাস রাখুন। আস্থা রাখুন। সেটা যে ধরনের পরিস্থিতিই হোক না কেন মনে মনে বলুন নিজেকে- আমি পারব। নিজের বলতে যাওয়া কথাটিকে যদি আপনার নিজের কাছেই দূর্বল বলে মনে হয় তাহলে অন্যেরা সেটাকে দাম দেবে তা কি করে আশা করবেন আপনি? তাই ভরসা রাখুন নিজের ওপর আর সামনে এগিয়ে যান।

৪. আগ্রহী হয়ে উঠুন
নিজের কথা বেশি না বলে অন্যের কথা শুনুন। নিজের মনকে আগ্রহী করে তুলুন। অন্যের কথা মনযোগ দিয়ে শুনলে একই সাথে দুটো লাভ হবে আপনার। এক. আপনি নতুন কিছু শিখতে পারবেন। দুই. আপনি আশা করতে পারবেন যে অন্য মানুসটিও আপনার কথা শুনবে। অন্যের কথায় মনযোগী হয়ে উটলে অন্যদের মনেও আপনার জন্যে একধরনের শ্রদ্ধাবোধ গড়ে উঠবে। যা আপনার মর্যাদা বাড়িয়ে তুলবে অনেকটা।

৫. ভঙ্গী
কথা বলার ভঙ্গীর দিকে লক্ষ্য রাখুন। মনে রাখবেন, জীবনের বেশিরভাগ সময়ই কি বলছেন তার চাইতে বড় ব্যাপার হয়ে দাড়ায় কীভাবে বলছেন সেটা। আর তাই ইতিবাচক মনোভাব ধরে রাখুন। সঠিকভাবে আচরণ করুন আর সামনের মানুষটির পরিস্থিতি বিবেচনা করে নিজের কথাগুলোকে আর কথা বলার ভঙ্গীকে সাজান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.