সফল প্রেমের পাঁচ চাবিকাঠি

ভালোবাসা যখন আসে, চারপাশের সবকিছু ফুলেল মনে হয়। ইতিবাচকতা আসে আর আনন্দের সীমা চরমে পৌঁছায়। প্রতি দেখায়, প্রতিবার ছোট্ট অন্তরঙ্গ মুহূর্ত বিনিময়ে বিস্ময় জাগে, যেন স্বর্গীয় অনুভব। আর কে না চায় সুদীর্ঘ হোক প্রেম?

ভারতের বিখ্যাত ফ্যাশনবিষয়ক সাময়িকী ফেমিনার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রেমে সাফল্যের জন্যও বেশ কিছু মূলমন্ত্র রয়েছে। এমন কিছু করা যাবে না, যাতে সম্পর্কে তিক্ততা আসে। আসুন, আমরা এ নিয়ে কিছু পরামর্শ জেনে নিই—

নেতিবাচক কিছু বলবেন না

বন্ধুবান্ধব ও পরিবারের লোকজনের কাছে কখনো সঙ্গী সম্পর্কে খারাপ কিছু বলবেন না। সব সময় ভালো কিছু বলুন। আপনার চারপাশের মানুষ সব সময় নজরে রাখে আপনি সঙ্গীর সঙ্গে কেমন আচরণ করছেন। সঙ্গী সম্পর্কে নেতিবাচক বা অসম্মানজনক কোনো কথা যদি আপনি বন্ধুমহলে বলে বেড়ান, তবে তা সম্পর্কে প্রভাব ফেলতে পারে।

কথা বলুন মিষ্টিভাষ্যে

মুরুব্বিরা বলেন, একবার মুখ ফসকে বেরিয়ে গেলে কথা আর ফেরানো যায় না। তো, আপনি যখন সঙ্গীর সঙ্গে কথা বলবেন, নরম সুরে বলুন। হৃদয় দিয়ে বলুন। সমস্ত রুক্ষ শব্দ পরিহার করুন। হৃদয় দিয়ে সবকিছু করা আর যত্নবান হলে সম্পর্ক দীর্ঘদিন টেকে। আর সঙ্গীর মন বুঝতে পারাটাও জরুরি।

দুঃসময়ে পাশে থাকুন

প্রত্যেকের জীবনেই উত্থান-পতন থাকে। কঠিন সময় আসতে পারে দুজনেরই। এ সময় একে অন্যের সহায়ক হোন। কারণ, কঠিন সময়ে দুজনেরই ভালোবাসা ও সাপোর্ট দরকার। এতে সম্পর্কে আস্থা বাড়বে এবং সঙ্গী আপনার ওপর নির্ভর করবে।

একে অন্যকে সময় দিন

এ কথা সত্য যে বর্তমানে সবাই ব্যস্ত। পরিবার ও বন্ধুবান্ধব সব সময় বলে তাদের সঙ্গে সময় কাটাতে। আর এসবের মাঝে সঙ্গীকে এড়িয়ে যেতে পারেন। কিন্তু আপনাকে মনে রাখতে হবে, অফিস যেমন গুরুত্বপূর্ণ, তেমনই সঙ্গীও আপনার জীবনে গুরুত্বপূর্ণ। তাই সঙ্গীর সঙ্গে ভালোবাসাময় সময় কাটান। একত্রে ভ্রমণেও যেতে পারেন।

ভালো মুহূর্ত উদযাপন করুন

সম্পর্ক ভালো রাখতে সুখকর মুহূর্তগুলো উদযাপন করতে হবে। যেমন—আপনি ছুটির দিনের জন্য অপেক্ষা করতে পারেন। সে সময় ভালো মুহূর্ত কাটান। আপনি কি আপনার জীবনে সুখকর স্মৃতি চান না? তাহলে সব ভালো মুহূর্ত একসঙ্গে উদযাপন করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.