রূপচর্চায় চকোলেট

চকোলেটে রয়েছে এমন কিছু উপাদান যা কিনা বিষণ্ণতা কাটিয়ে নিমিষেই আপনার মন ভালো করে দিতে পারে যারা চকোলেট পছন্দ করে না আপনি কি তাদের একজন?
তবে আপনাকে বলছি, ১৩ সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিক চকোলেট দিবস! আর গিফট, খাওয়ার পাশাপাশি এটা দিয়ে করতে পারেন রূপচর্চাও। শরীর-মন সতেজ করতে চকোলেটের তুলনা নেই। অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের সেরা উৎস ডার্ক চকোলেট।
ত্বকের যত্নে চকোলেটঃ

চকোলেটে রয়েছে এমন কিছু উপাদান যা কিনা বিষণ্ণতা কাটিয়ে নিমিষেই আপনার মন ভালো করে দিতে পারে। তবে ত্বকের যত্নে ‘চকোলেট থেরাপিতে’ প্রথম প্রথম আপনার একটু খারাপ লাগতে পারে। কিন্তু যখনই আপনি দ্বিধা কাটিয়ে উঠবেন তখনই পাবেন সুন্দর এক অনুভূতি।

লাগাতে পারেন চকোলেট মাস্কঃ

ত্বকের যত্নে ঘরেই তৈরি করতে পারেন চকোলেট মাস্ক। প্রথমে আপনাকে ৫০ গ্রাম চকোলেট গরম করে তরল করে নিতে হবে।

এর সাথে এক চা চামচ অলিভ অয়েল ও একটি ডিমের কুসুম মিশিয়ে নিন। তবে আপনার যদি ডিমের গন্ধ সহ্য না হয় তাহলে কুসুম দেয়ার দরকার নেই। শুধু চকোলেট আর অলিভ অয়েল মিশিয়েই ত্বকে লাগান। ১৫ মিনিট পর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

চকোলেট প্যাডিকিউরঃ

সৌন্দর্য চর্চায় এখন সবাই সচেতন। আর কথায় বলে, পা সুন্দর না হলে নাকি সবই বৃথা! তাই সৌন্দর্যচর্চায় কেবল মুখের যত্ন নিলেই চলবে না। মুখের সঙ্গে শরীরের অন্যান্য অংশকেও দিতে হবে সমান গুরুত্ব।

সৌন্দর্যচর্চায় চকোলেট আপনার খুবই ভালো বন্ধু এটা অস্বীকার করার কোনো উপায়ই নেই। আপনার পা যদি শুষ্ক ও রুক্ষ হয়ে যায় তবে করতে পারেন চকোলেট প্যাডিকিউর। এতে আপনার পায়ে আর্দ্রতা ফিরে আসবে।

ঘরেই করুন চকোলেট স্ক্রাবঃ

খুব সহজে ঘরে বসেই আপনি বানাতে পারেন চকোলেট স্ক্রাব। ত্বকের যত্নে চকোলেট
এজন্য চকোলেট ছাড়াও লাগবে সামুদ্রিক লবণ, কাঁচা দুধ আর কোকো পাউডার।

দুই চা চামচ সামুদ্রিক লবণের সাথে এক চা চামচ কাঁচা দুধ আর পরিমাণ মতো কোকো পাউডার মিশিয়ে নিন। ব্যস তৈরি হয়ে গেল চকোলেট স্ক্রাব। সামুদ্রিক লবণ ত্বকের মৃতকোষ দূর করতে সাহায্য করে।

চকোলেট বডিওয়াশ ও ক্রিমঃ

দিনভর সুগন্ধ ধরে রাখার সবচেয়ে ভাল উপায় হল গোসলে সুগন্ধি বডিওয়াশ ব্যবহার করা। তারপর লাগাতে পারেন বডিলোশান বা ক্রিম। চকোলেট ফ্লেভারের বডিওয়াশ ও ক্রিম আপনাকে সারাদিন চনমনে রাখতে সাহায্য করবে। ত্বকের যত্নে চকোলেট এটা আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করবে।

ঠোঁটের যত্নেঃ

ঠোঁট আমাদের শরীরের একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। আর সুন্দর ঠোঁট কে না চায় বলুন? ঠোঁটের যত্নেও ব্যবহার করতে পারেন চকোলেট। ঠাণ্ডা, গরম, সূর্যরশ্মি, দূষণ সবকিছুই ঠোঁটের জন্য ক্ষতিকর।

 

এসব কারণে ঠোঁট হয়ে যায় লাবণ্যহীন, শুষ্ক ও নিষ্প্রাণ। চকোলেট আপনার ঠোঁটের আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.