পিঠে কি এমন ব্রণতে ভরে গিয়েছে? কাজে লাগান এই অব্যর্থ ঘরোয়া উপায়গু’লি

টিন-এজ বয়সেই প্রধানত ব্রণর সমস্যা থাকে। কিন্তু অনেকেরই টিন-এজ পেরিয়ে গেলেও ব্রণর সমস্যা দেখতে পাওয়া যায়। শুধু যে মুখেই ব্রণ হয়ে তা নয়। শরীরের যে কোনও জায়গায় হতে পারে ব্রণ। বিশেষ করে পিঠে দেখতে পাওয়া যায় এই ব্রণ। আর ব্রণ মানেই দাগ। যার জন্য ইচ্ছে করলেও আম’রা কোনও রকম ডিজাইনার ড্রেস পড়তে পারি না। কিন্তু কেন হয়ে এই ব্রণ? জেনে নেওয়া যাক কারণগু’ল।

যারা জিম করেন, তারা জিম থেকে এসে কাপড় না বদলালে এবং শাওয়ার না নিলে হতে পারে ব্রণ। নিয়মিত পিঠে স্ক্রাবিং না করলে হতে পারে ব্রণ। পিঠে স্ক্রাবিং ঝামেলা বলে অনেকেই তা এরিয়ে যান। তাই ব্রণর সঙ্গে লড়তে পারে এমন বডি ওয়াশ ব্বহার করুন। বডি ফিটিং ড্রেস থেকে হয় পিঠে ব্রণ।

কিছু ঘরোয়া পদ্ধতিতেই দূর করা যাবে ব্রণ বা ব্রণর দাগ…

কাঁচা হলুদ বেটে ভাল করে সারা পিঠে লাগিয়ে রাখু’ন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। হলুদের অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল দ্রুত ব্রণ সারাতে সাহায্য করে।

ট’ক দই ভাল করে ফেটিয়ে পিঠে লাগান। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। ট’ক দইয়ে প্রচুর পরিমাণে প্রোবায়োটিক থাকে যা স্বাস্থ্যের পক্ষে ভাল।

অ্যালো’ভেরা জে’ল পিঠের ব্রণর মধ্যে লাগিয়ে ২০-৩০ মিনিট রেখে দিন। এর পর ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন।

গ্রিন টি ছেঁকে ঠান্ডা করে, তুলোর সাহায্যে ব্রণর মধ্যে লাগালে উপকার পাবেন। কারণ গ্রিন টিতে পলিফেলন থাকায়, এটি ব্রণ প্রতিরোধে সাহায্য করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.